“যুবা সময়কাল শক্তি এবং সাহসিকতায় বৈশিষ্ঠ্যমণ্ডিত এবং মানব জীবনে সব থেকে পছন্দসই সময় হিসেবে উল্লেখযোগ্য হয়। সেইকারণে তোমাদের দিন এবং রাত্রি চেষ্টা করা উচিত যাতে স্বর্গীয় শক্তিতে এবং দীপ্ত অভিপ্রায়ে উজ্জীবিত হয়ে এবং তাঁর সুষমামণ্ডিত শক্তির এবং স্বর্গীয় মাধুর্য এবং নিশ্চয়তার গুণ সম্পন্ন হতে পারো...”



আবদুল-বাহা

বাহাই সমাজ যুবা সময়কালকে একজন ব্যক্তির জীবনে একটি বিশেষ সময় হিসেবে স্বীকৃতি দেয়, যা মূলতঃ মানবজীবনের বসন্তকাল। যদি যুবা বয়সীদের বিকশিত হওয়া মেধাগত, আধ্যাত্মিক এবং জাগতিক ক্ষমতাগুলিকে এই বয়সে সামাজিক রূপান্তরে প্রবাহিত করা যায়, এরফলে সমাজগুলি এবং যুবারা নিজেরা তাদের প্রকৃত সামর্থ্য বুঝতে পারবে। কিশোর-কিশোরীকালসমূহে একটি বিশেষ ধরনের প্রস্তুতির প্রয়োজন হয়, দ্রুত পরিবর্তনের একটি সময়, ১১ থেকে ১৪ বছর বয়সে যখন যুবারা শিশুকাল থেকে পরিপক্কতার দিকে এগোয়। এইসব তরুন যৌবনোন্মুখ, যাদের ‘কিশোর–কিশোরী’ বলা হয়, তাদের জীবনের এইসময় অনেক নতুন প্রশ্নাবলী এবং আকাংখাসমূহ থাকে। যখন এই বয়স দল প্রায়ই সমস্যা উদ্রেককারি এবং নেতিবাচক সজ্ঞায় দেখানো হয়। কিশোর-কিশোরী কর্মসূচি এই বয়সের গ্রুপের পরার্থবাদের জন্য, বিশ্ব সম্পর্কে জানবার আগ্রহ, ন্যায়ের একটি শক্তিশালী বোধ এবং পৃথিবীর ভালোর জন্য কাজে উদ্দীপনা ইত্যাদির উপলব্ধির ওপর গড়ে উঠেছে। চ্যালেঞ্জসমূহ এবং সম্ভাবনাসমূহে ভরা সময়ে পাড়ি দেওয়ার এই দলকে সাহায্য করতে, কিশোর–কিশোরীদের আধ্যাত্মিক সামর্থ্যের জন্য বিশ্বব্যাপী একটি কার্যক্রমে বাহাই সমাজ উদ্যত হয়েছেন।

এই কর্মসূচীর অংশ হিসেবে, ১৫ বছর বা তার বেশী বয়সি যুবাদের ‘অ্যানিমেটর’ হিসেবে সেবা করার প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়, যারা তাদের অঞ্চলগুলির ছোটো গ্রুপের কিশোর-কিশোরীদের সঙ্গ দেয়। তাদের অ্যানিমেটরের সাহায্য নিয়ে, এইসব কিশোর-কিশোরী তাদের মনে জুড়ে থাকা প্রগাঢ় প্রশ্নগুলি অন্বেষণ করে। তারা উপকরণগুলি পড়ে যা তাদের আধ্যাত্মিক বোধশক্তি এবং সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য নৈতিক কাঠামো তৈরী করতে সাহায্য করে। উপকরণগুলি সদর্থকভাবে তাদের অভিব্যক্তি প্রকাশের ক্ষমতা তৈরিতেও তাদের সাহায্য করে এবং তাদের মধ্যে থাকা যথেষ্ট উদ্যমসমূহ সমাজগুলির সেবায় বইয়ে দেয়। বাস্তবতার অন্বেষণ যেখানে কর্মসূচী তাদের নিযুক্ত করে, সেটি সমাজে ক্রিয়ারত গঠণমূলক এবং ধংসাত্মক শক্তিগুলিকে বিশ্লেষণ করতে তাদের সাহায্য করে। এটি তাদের সেইসব শক্তিগুলিকে বাধা দিতে সাহায্য করে যা হয়তো আদর্শবান হিসেবে তাদের প্রকৃত পরিচয় কেড়ে নেয়, অন্যদিকে সদর্থক পরিবর্তন আনার বিষয়ে তাদের প্রচেষ্টাগুলির সঙ্গে সমগোত্রীয় করে।

Scroll Up